ঢাবির মেধাবী ছাত্র নেতা আহসান হাবীবের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

0
938

স্টাফ রিপোর্টার।।

ট্রেন দূর্ঘটনায় নিহত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হল ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আহসান হাবীবের আজ দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। রংপুর সদরের পালিচড়া বকসিপাড়ার অধিবাসী মাফিজার রহমানের প্রথম ছেলে আহসান হাবীব। গত২০১৫ সালের ২৯শে মে তিনি ট্রেন দূর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন।

আহসান হাবীব ঢাবির পরিসংখ্যান বিভাগের মেধাবী ছাত্র ছিলেন। ওই সময়ের ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সিদ্দীকি নাজমুল আলমের আস্থাভাজন ব্যক্তি ছিলেন। জীবনের বড় একটি অংশ এই ছাত্রলীগ নেতা বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে নিয়েই ছিলেন।

তার রাজনৈতিক সহ-যোদ্ধাদের সূত্রে জানা যায়, আহসান হাবীব ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রখর, ত্যাগী ছাত্রনেতা।মুজিব আদর্শ বুকে ধারন করে তার নিজের ক্যাম্পাসেরর ছোট -বড় সকলের বিপদে-আপদে পাশে ছিলেন। তার বাবা মাফিজার রহমান রাজু ছিলেন একজন সমবায় কর্মকর্তা। কিন্তু অসুস্থতার কারণে তিনি স্বেচ্ছায় কর্মবিরতীতে যান। তার দুই ছেলের মধ্যে আহসান হাবীব ও হাসান আল সাকিব (১৫)। কিন্তু বড় ছেলেকে হারিয়ে তিনি শোকে কাতর হয়ে পড়েন।

মাফিজার রহমান জানান, আমার ছেলে সব সময় ছাত্রলীগের সাথে ছিলেন এবং আমাদের পরিবার আওয়ামী রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। আমার বড় ছেলে হাবীবের মৃত্যুর পর কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ থেকে পরিবারের কোন খোঁজ-খবর নেয়া হয়নি।

অন্যদিকে স্থানীয় ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উচিত এই পরিবারের খোঁজ-খবর নেওয়া।

ঢাবির একাধিক ছাত্রলীগ নেতাদের সঙ্গে মুঠো ফোনে কথা হলে তারা প্রতিবেদক কে জানান,আহসান হাবীব ছিল একদিকে মেধাবী ছাত্র নেতা, অন্য দিকে ছিল সহজ,সরল সাদা মনের মানুষ।তার অকাল মৃত্যু সত্যি অনেক দু:খজনক।

রংপুর জেলা আওয়ামিলীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বকসির সঙ্গে এই মেধাবী ছাত্র নেতার ব্যাপারে কথা হলে তিনি বলেন,হাবীব ছিল আমার এলাকার মেধাবীদের মধ্যে একজন।তিনি আরও বলেন, সে ছিল উদীয়মান তরুন নেতৃত্বের প্রতীক।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমি দেখবো।

LEAVE A REPLY

five × 5 =